Visa

ফিনল্যান্ড স্টুডেন্ট ভিসা

ফিনল্যান্ড স্টুডেন্ট ভিসা

যদি আপনি ফিনল্যান্ডে পড়াশোনা করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনার ফিনল্যান্ড এর স্টুডেন্ট ভিসার প্রয়োজন হবে। এটি মূলত ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য একটি ভিসা পদ্ধতি। আপনি যদি ফিনল্যান্ডের পড়াশোনা করতে চান তাহলে আপনাকে ফিনল্যান্ড সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হবে। ফিনল্যান্ডের স্টুডেন্ট ভিসা কেমন। ফিনল্যান্ডের স্টুডেন্ট ভিসায় যেতে কত টাকা লাগে, কত সময় লাগবে ইত্যাদি সম্পর্কে জেনে নেওয়া জরুরী। আজকে আপনাদের সঙ্গে ফিনল্যান্ড এর স্টুডেন্ট ভিসা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব ইনশাআল্লাহ।

ফিনল্যান্ডে স্টুডেন্ট ভিসায় যেতে কত টাকা লাগে

ফিনল্যান্ডে যারা স্টুডেন্ট ভিসায় যেতে চান। তারা প্রশ্ন করে থাকেন ফিনল্যান্ডে স্টুডেন্ট ভিসা করতে কত টাকা লাগে। ফিনল্যান্ডের স্টুডেন্ট ভিসা সংক্রান্ত তথ্য নিচে দেওয়া হল।

ফিনল্যান্ড এর স্টুডেন্ট ভিসা পেতে হলে আপনাকে প্রায় ৩৬০ থেকে ৬৫ ইউরো ফি দিতে হবে। এইচপি আপনাকে ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে প্রদান করতে হবে। কিছু কিছু দেশে পড়াশোনা করতে যেতে চাইলে স্বাস্থ্য বীমা করা প্রয়োজন হয়ে থাকে। ফিনল্যান্ডে যেতে হলে অন্য দেশ থেকে স্বাস্থ্য বীমার প্রয়োজন হয় কিন্তু বাংলাদেশ থেকে স্বাস্থ্য বিমার প্রয়োজন হয় না। এটা আমাদের জন্য অনেকটাই সুবিধা।

স্টুডেন্ট ভিসা পেতে কত দিন সময় লাগে

আপনারা যারা ফিনল্যান্ডের স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করবেন। তারা অবশ্যই ভিসা আবেদনের জন্য একটু বেশি সময় দেবেন। আপনি আপনার পছন্দের বিশ্ববিদ্যালয়ে গৃহীত এবং নথিভূক্ত হওয়ার পরে তবে আপনি ফিনল্যান্ডের স্টুডেন্ট ভিসা করার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

আপনি যে বিশ্ববিদ্যালয় আবেদন করতে চাচ্ছেন সে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রী প্রোগ্রাম শুরু হওয়ার একমাস আগে ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। আপনি যদি ফিনল্যান্ডে স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করেন তাহলে স্টুডেন্ট ভিসা পেতে প্রায় এক মাস এর মত সময় লাগতে পারে।

ফিনল্যান্ডের স্টুডেন্ট ভিসার জন্য যে যে পদক্ষেপ গ্রহণ করা প্রয়োজন

আপনারা অনেকেই ফিনল্যান্ডের স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করবেন। ফিনল্যান্ডে পড়াশোনা করতে যেতে চান। তাদের জানা জরুরী যে ফিনল্যান্ডের স্টুডেন্ট ভিসার জন্য যে সকল পদক্ষেপ প্রয়োজন সেগুলো সম্পর্কে। আজকে আপনাদের সঙ্গে সেই সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব।

  • প্রথমত আপনাকে ফিনল্যান্ডে ইমিগ্রেশন সার্ভিস এর সাথে অনলাইনে নিবন্ধন রাখতে হবে।
  • ভিসা আবেদন কেন্দ্র থেকে আপনাকে একটি অ্যাপোয়েন্টমেন্ট নিতে হবে।
  • ফিনল্যান্ডে স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আপনাকে কাগজপত্র দূতাবাসে জমা দিতে হবে।
  • ফিনল্যান্ডের স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আপনাকে বায়োমেট্রিক্স প্রদান করতে হতে পারে। এগুলো নেওয়ার মূল কারণ সে দেশের নিরাপত্তার জন্য।
  • ইংল্যান্ডে স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আপনাকে ইন্টারভিউয়ে অংশগ্রহণ করতে হবে।
  • আপনি আপনার কোর্সের মেয়াদ পর্যন্ত বৈধ থাকবেন। আপনার কোর্স শেষ হয়ে যাওয়ার পর ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাবে। আপনাকে প্রতিবছর ভিসা নবায়ন করতে হতে পারে।

 

ফিনল্যান্ড স্টুডেন্ট ভিসার জন্য কি কি ডকুমেন্ট প্রয়োজন

আপনি ফিনল্যান্ডে স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে চাইলে আপনার যে সকল ডকুমেন্টগুলো প্রয়োজন হবে তা নিয়ে আলোচনা করা হলো। প্রথমত আপনাকে নিজেকে প্রমাণ করার জন্য যে সকল কাগজপত্র প্রয়োজন তা দিতে হবে। আপনাকে প্রমাণ করতে হবে যে ৫৬০  ইউরও আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের রয়েছে। ফিনল্যান্ড যাওয়ার জন্য আপনার কোন মেডিকেল পরীক্ষা করতে হবে না।

ফিনল্যান্ডে যাবার পরে কোন বিষয়ে পড়াশোনা করার সুযোগ পাবেন

আমরা ফিনল্যান্ডে অনেকেই পড়াশোনা করার জন্য যেতে চাই বা যেয়ে থাকি। আমরা হয়তো বেশিরভাগ মানুষ জানিনা ফিনল্যান্ডে কোন কোন বিষয়ে পড়াশোনা করার সুযোগ রয়েছে। আজকে আপনাদের সঙ্গে সেই সকল বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করব।

শিল্পকলার ইতিহাস,, অর্থনীতি,, রাষ্ট্র ও সমাজ,, ধর্ম দ্বন্দ্ব ও সংলাপ,, আন্তর্জাতিক গণ আইন,, সংবাদমাধ্যম অধ্যায়ন,, জৈব তথ্যপ্রযুক্তি,, রাসায়নিক জীববিজ্ঞান,, তথ্যপ্রযুক্তি,, খাদ্য বিজ্ঞান ও খাদ্য রসায়ন এবং পরিসংখ্যান ইত্যাদি বিষয়ের উপর পড়াশোনার সুযোগ রয়েছে।

ফিনল্যান্ড স্কলারশিপ স্টুডেন্ট ভিসা

আমরা অনেকেই ফিনল্যান্ডের পড়াশোনা করার জন্য যেতে চাই। অনেকেই আছেন যারা স্কলারশিপ এর মাধ্যমে ফিনল্যান্ডের পড়াশোনা করার সুযোগ পেয়েছেন। আমরা স্কলারশিপ এর মাধ্যমে যে কোন দেশে পড়াশোনা করার জন্য যেতে পারি। ফিনল্যান্ডে স্কলারশিপ নিয়ে পড়াশোনার সুযোগ রয়েছে। স্কলারশিপ এর মাধ্যমে পড়াশোনা করতে গেলে স্বল্প খরচে পড়াশোনা শেষ করা যায়।

ইতালি কাজের ভিসা / ইতালি যেতে কত টাকা লাগে

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা ফিনল্যান্ডে যে সকল সুযোগ-সুবিধা পান

ফিনল্যান্ডে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা পড়াশুনা করতে যাই। ফিনল্যান্ডে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর জন্য কয়েক রকম সুযোগ সুবিধা রয়েছে। আপনারা ফিনল্যান্ডে পড়াশোনা করার জন্য যেতে চাইলে এগুলো যানা ও আপনাদের জন্য জরুরী। ফিনল্যান্ডে যারা উচ্চশিক্ষার জন্য যেয়ে থাকেন তাদের পড়াশোনার পাশাপাশি চাকরি করার সুযোগ রয়েছে। এর জন্য মূলত যারা শিক্ষার জন্য ফিনল্যান্ডে যেয়ে থাকেন তারা সেখান থেকে টাকা আয় করে নিজেরা চলাচল করে এবং কিছু টাকা জমা করতে পারে।

বর্তমানে ফিনল্যান্ডের শিক্ষা ব্যবস্থা কেমন

আমরা জানি ফিনল্যান্ড একটি উন্নত রাষ্ট্র। ফিনল্যান্ডের শিক্ষা ব্যবস্থা উন্নত। ফিনল্যান্ডে উচ্চশিক্ষার জন্য অনেক দেশ থেকে শিক্ষার্থীরা এসে থাকেন। ফিনল্যান্ডে কম্প্রিহেনসিভ শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে যার বয়স ধরা হয়েছে 7 থেকে 16 বছর পর্যন্ত। প্রাথমিক ও নিম্নমাধ্যমিক এ তারা যে সকল বিষয়ের ওপর শিক্ষা নিয়ে থাকেন তা হলো ভাষা,, গণিত,, সমাজবিজ্ঞান,, সাধারণ বিজ্ঞান,, সংগীত ও চিত্রকলা।

ফিনল্যান্ডে মাতৃভাষা ছাড়াও আরো কয়েক রকম ভাষা শিখতে হয়। ফিনল্যান্ডের শিক্ষার্থীরা 17 থেকে 19 বছর এরমধ্যে উচ্চ মাধ্যমিক শেষ করে এবং এটাও এক প্রকারের বাধ্যতামূলক বলা যায়। উপর আলোচনা থেকে আমরা বুঝতে পারি ফিনল্যান্ডের শিক্ষা ব্যবস্থা কেমন।

ফিনল্যান্ডে ছাত্র ভিসার ধরন কেমন হয়

ফিনল্যান্ডে যে সকল শিক্ষার্থী পড়াশোনা করার জন্য যেতে চান তাদের মূলত দুই রকমের ভিসা দিয়ে থাকেন। শিক্ষার্থী ভিসা এবং বাসস্থান পারমিট ভিসা।

  • ফিনল্যান্ডে যাওয়া ছাত্র ভিসা নিয়ে যেয়ে থাকেন তাদের ভিসা অস্থায়ী এবং স্বল্প মেয়াদী হয়ে থাকেন।
  • ফিনল্যান্ডে যদি কেউ ছাত্র থাকার অনুমতি পান তবে একটি শিক্ষার্থীকে 90 দিনের বেশি থাকার জন্য এবং পড়াশোনা করার জন্য ইস্যু করা হয়। যারা ফিনল্যান্ডে সম্পূর্ণ ডিগ্রী কোর্স এর জন্য স্বীকৃত হয়েছে তারা এক বছরের জন্য আবাসনের অনুমতি পেয়ে থাকেন।
  • ফিনল্যান্ডে যেসকল শিক্ষার্থীরা এক বছরের জন্য বাসস্থান পেয়ে থাকেন এবং তারা যদি আরো বেশি সেখানে থাকতে চায় তাহলে তাদের স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে এক্সটেনশনের জন্য আবেদন করার প্রয়োজন হয়ে থাকে।

আলবেনিয়া যেতে কত টাকা লাগে

ফিনল্যান্ডে ছাত্র রেমিটেন্স পারমিট অর্জন এর জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ

আপনি যদি ফিনল্যান্ডে যেতে চান এবং ফিনল্যান্ডের ছাত্র রেমিটেন্স পারমিট অর্জন করতে চান তাহলে যে সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে তা নিচে দেওয়া হল।

  • আবাসনের অনুমতি পত্র আবেদন এর ফরম পূরণ করতে হবে।
  • আবাসনের জন্য যে সকল প্রয়োজনীয় নথি প্রয়োজন হবে সেসকল নথি সংগ্রহ করতে হবে।
  • আবাসনের আবেদনের জন্য ছবি সরবরাহ করতে হবে। ছবিটি অবশ্যই রঙিন হতে হবে। ছবিটি সদ্য তোলা ছবি হতে হবে। অনেক দিন আগের ছবি গ্রহণ করা হবে না।
  • সবকিছু যদি সঠিকভাবে করা হয়ে থাকে তবে আপনি বাসভবন পারমিট আবেদন ফর্ম টি জমা দিতে পারেন। জমা দেওয়ার জন্য অবশ্যই আপনাকে আপনার নিকটবর্তী দূতবাসে জমা দিতে হবে।
  • বায়োমেট্রিক ডেটা সংগ্রহ করতে হবে।
  • বায়োমেট্রিক ডেটা টি সকল ক্ষেত্রে প্রয়োজন হবে।
  • বাসস্থান পারমিট কার্ড সংগ্রহ করতে হবে। আপনি আপনার নিজস্ব বাসস্থানের পারমিট কাজ সংগ্রহ করতে হবে।

 

ফিনল্যান্ডের শিক্ষার্থীদের জন্য রেসিডেন্সি ফি

শিক্ষার্থীদের রেসিডেন্ট পার্মিটের জন্য জমা দিতে হবে প্রায় তিনশো ষাট ইউরো।

শিল্পকলার ইতিহাস, অর্থনীতি, রাষ্ট্র ও সমাজ, ধর্ম দ্বন্দ্ব ও সংলাপ, আন্তর্জাতিক গণ আইন, সংবাদমাধ্যম অধ্যায়ন, জৈব তথ্যপ্রযুক্তি, রাসায়নিক জীববিজ্ঞান, তথ্যপ্রযুক্তি, খাদ্য বিজ্ঞান ও খাদ্য রসায়ন এবং পরিসংখ্যান ইত্যাদি বিষয়ের উপর পড়াশোনার সুযোগ রয়েছে।

  • শিল্পকলার ইতিহাস
  • অর্থনীতি
  • রাষ্ট্র ও সমাজ
  • ধর্ম দ্বন্দ্ব ও সংলাপ
  • আন্তর্জাতিক গণ আইন
  • সংবাদমাধ্যম অধ্যায়ন
  • জৈব তথ্যপ্রযুক্তি
  • রাসায়নিক জীববিজ্ঞান
  • তথ্যপ্রযুক্তি
  • খাদ্য বিজ্ঞান ও খাদ্য রসায়ন
  • গনিত 
  • পরিসংখ্যান

অস্ট্রিয়া স্টুডেন্ট ভিসা 2024

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button